দুর্গাপুর(নেত্রকোনা)প্রতিনিধি

দুর্গাপুরে ঈদের ৪দিন পরও দুর্গাপুর টু ঢাকা, ময়মনসিংহে যাওয়া যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

যাত্রীদের কাছ থেকে বকসিসের নামে দ্বিগুন ভাড়া আদায় করছেন চালকরা। ঈদের পর দিন থেকে বিভিন্ন সড়ক উপসড়কে এখনো যাত্রীদের জিম্মি করে ১৫০ থেকে ২০০ টাকা পর্যন্ত অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। রাস্তা খারাপ ও সরাসরি বাস চলাচল না করায় দুর্গাপুর থেকে ঢাকার দুরত্ব ১৮৫কি.মি, যার সর্বোচ্চ ভাড়া ২২০টাকা হওয়ার কথা থাকলেও অনেক আগ থেকেই রাস্তা খারাপের অজুহাতে যাত্রীদের কাছ থেকে নাইট কোচ সার্ভিস গুলো ৩৫০টাকা হারে ভাড়া নেয়া হচ্ছে। ধর্মীয় কোন পার্বন থাকলে তো কথাই নাই। বাস যাত্রী আমিনুল হক আকাশ জানান, অন্যদের কাছ থেকে ৬০০টাকা নিলেও সে ৫শত টাকায় ঢাকা যাওয়ার বাসের টিকিট কিনেছে। অন্য দিকে দুর্গাপুর থেকে ময়মনসিংহের সিএনজি‘র ভাড়া বরাবর ১৫০টাকা নিলেও বর্তমানে ৩শত থেকে ৪শত টাকা পর্যন্ত নিতে দেখাগেছে। নি¤œ আয়ের মানুষদের ভরসা হচ্ছে ট্রাক বা মলম গাড়ী।

চালকদের কাছে জিম্মি হয়ে পড়েছেন সাধারণ যাত্রী, এ যেন দেখার কেউ নাই। সাধারণ যাত্রীগন উদ্ধতন কর্তপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মামুনুর রশীদ এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি আপত্তিজনক, তবে এ ব্যাপারে জরুরী ব্যাবস্থা নেওয়া হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY