আন্তর্জাতিক সংবাদ : মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে চলমান সহিংসতার নিন্দা জানিয়েছেন শান্তিতে নোবেল জয়ী পাকিস্তানের মালালা ইউসুফজাই। একই সঙ্গে রাখাইনে রোহিঙ্গাদের ওপর অমানবিক নিপীড়নের ঘটনায় শান্তিতে নোবেল জয়ী মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি’ কে নিন্দা জানানোর আহ্বান জানিয়েছেন মালালা। সাম্প্রতিক সহিংসতায় সূচির নিন্দা জানানোর অপেক্ষায় আছেন বলেও জানান মালালা।

মালারা বলেন, মিয়ানমারের সংখ্যালঘু মুসলিম রোহিঙ্গারা যদি দেশটির নাগরিক নাই হয়, তবে তারা কীভাবে প্রজন্মের পর প্রজন্ম ধরে সেখানে বসবাস করছে। মালালা রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারের নাগরিকত্ব দেওয়ারও আহ্বান জানান। একইসঙ্গে দেশটিতে রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের উপর সাম্প্রতিক সহিংসতায় নিন্দা ও উদ্বেগ জানিয়ে সেই দেশের শান্তিতে নোবেল জয়ী নেত্রী অং সাং সূচির নিরবতার সমালোচনাও করেছেন তিনি।

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মিয়ানমারে সাম্প্রতিক সহিংসতার ঘটনায় রবিবার সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে টুইট করেন পাকিস্তানের এই নোবেল জয়ী।

টুইটে মালালা বলেন, ‘আমি সব সময় খবর দেখি, মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলমানদের কষ্টে আমার হৃদয় ভেঙে যায়।’

সহিংসতা এবং ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদেরকে খাবার সরবরাহ, আশ্রয় ও শিক্ষার সুযোগ দিতে বাংলাদেশকে উদাহরণ হিসেবে অনুসরণ করতে পাকিস্তানসহ অন্যান্য দেশের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

পাকিস্তানের এই নোবেল জয়ী বলেন, রাখাইনে সহিংসতার ঘটনায় সু চির নিন্দার জন্য বিশ্ব এবং রোহিঙ্গা মুসলিমরা অপেক্ষা করছেন।

উল্লেখ্য, মিয়ানমারের গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থার দাবিতে কয়েক দশক ধরে লড়াই চালিয়ে আসা অং সান সু চি ১৯৯১ সালে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পান।

সাম্প্রতিক সহিংসতায় মিয়ানমারে কয়েকশ রোহিঙ্গা মুসলমান নিহত হয়েছেন। এছাড়া সীমান্ত পাড়ি দিয়ে এ পর্যন্ত বাংলাদেশে প্রায় ৭৩ হাজার রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী প্রবেশ করেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY