বিনোদন সংবাদ :  ঢালিউডের সুপারস্টার শাকিব খান। সবার চেয়ে পারিশ্রমিক বেশি পাবেন এটাইতো স্বাভাবিক। প্রত্যেকটি ছবির জন্যই নিচ্ছেন আকাশছোঁয়া পারিশ্রমিক। এ তারকাকে পেতে লক্ষ লক্ষ টাকা খরচ গুণছেন পরিচালকরাও। সম্প্রতি শোনা যায়, এক ছবির জন্যই ৬০ লাখ টাকা নিয়েছেন শাকিব খান। শুধু বাংলাদেশি ছবি করতেই এই পারিশ্রমিক নিচ্ছেন তিনি। কিন্তু নতুন খবর হল এখন আর ছবিটি করতে পারছেন না বলে জানিয়েছেন শাকিবেরই ঘনিষ্ঠ এক সূত্র।

শাকিব খানের ঘনিষ্ঠ বন্ধু প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল গণমাধ্যমকে জানায়, ‘স্কটল্যান্ড যাওয়ার দুদিন আগে পরিচালক দীপঙ্কর দীপনের একটি ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন শাকিব। সেই ছবিটি তিনি ৬০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক নিয়েছিলেন। কিন্তু গত রাতে শাকিব আমাকে ফোন করেছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, দীপঙ্কর দীপনের ছবিতে তিনি কাজ করতে পারছেন না। ঢাকায় এসে টাকা ফেরত দেবেন।’

কেন ছবিটি করছেন না শাকিব? এ প্রশ্নের জবাবে ইকবাল বলেন, ‘আসলে শাকিব খান এখন শিডিউল জটিলতায় ভুগছেন। স্কটল্যান্ড যাওয়ার আগে হঠাৎ করেই তিনি চুক্তিবদ্ধ হন। কিন্তু দেশের বাইরে যাওয়ার পর শিডিউল মেলাতে গিয়ে দেখেন, তিনি এখন এই ছবির জন্য সময়ই দিতে পারছেন না। বাংলাদেশে কয়েকটি ছবি রয়েছে, আবার কলকাতার বেশ কয়েকটি ছবি রয়েছে। এগুলো করার মাঝে এই ছবির জন্য তিনি সময় বের করতে পারবেন না।’

তিনি আরো বলেন, একটা সময় পুরো ছবির বাজেট ধরা হত ৬০ লাখ। সেখানে শাকিব খান পারিশ্রমিকই নিচ্ছেন সেই পরিমাণ টাকা। কিন্তু দেখা যাচ্ছে ৬০ লাখ টাকা দিয়েও শিডিউল মিলছে না শাকিবের।

এ বিষয়ে দীপঙ্কর দীপনের সঙ্গে কথা হয়েছে কি না জানতে চাইলে ইকবাল বলেন, ‘আসলে এই বিষয়ে এখনো উনার সঙ্গে কথা বলিনি। সময় করে কথা বলব।’

ছবিতে এরই মধ্যে কলকাতার অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ও বাংলাদেশের পরীমনি চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন। ছবিতে শাকিব খানের বিপরীতে অভিনয় করার কথা ছিল পরীমনির।

উল্লেখ্য, বর্তমানে স্কটল্যান্ডে আছেন ঢাকাই সিনেমার এ তারকা। সেখানে ‘ভাইজান এলো রে’ ছবির শুটিং করছেন। ছবিটি পরিচালনা করছেন কলকাতার পরিচালক জয়দীপ মুখার্জি। আগামী ২০ তারিখ পর্যন্ত সেখানে শুটিং করার কথা রয়েছে তার। এ ছবিতে তার বিপরীতে অভিনয় করছেন কলকাতার শ্রাবন্তী ও পায়েল সরকার।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY