জাতীয় সংবাদ :  কোটা সংস্কারে আন্দোলনের সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হলে এক ছাত্রীকে পায়ের রগ কেটে দেওয়ার অভিযোগে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত ছাত্রলীগ নেত্রী ইফফাত জাহান এশার বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বুধবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর এ কে এম গোলাম রব্বানী বিশ্ববিদ্যালয়ের শৃঙ্খলা কমিটির সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে ঢাকাটাইমসকে নিশ্চিত করেছেন।

এশার বহিষ্কারাদেশ তুলে নেওয়ার পাশাপাশি ১০ এপ্রিল কবি সুফিয়া কামাল হলের ঘটনায় ওই হলের ২৬ ছাত্রীকে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন ঢাবি উপাচার্য।

সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনের জেরে ১০ এপ্রিল মধ্যরাতে কবি সুফিয়া কামাল হলে সাধারণ ছাত্রীদের ওপর নির্যাতনের অভিযোগ আনা হয় ওই হলে ছাত্রলীগ সভাপতি এশার বিরুদ্ধে।

তার বিরুদ্ধে ছাত্রলীগের হল শাখার সহ-সভাপতি মোর্শেদার পায়ের রগ কেটে দেওয়া হয়েছে বলেও গুজব ছড়িয়ে পড়ে। এতে হলের ছাত্রীরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠলে ঘটনাস্থলেই এশাকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের ঘোষনা দেয় ঢাবি প্রশাসন। একইসঙ্গে নিজ সংগঠন ছাত্রলীগও তাকে বহিষ্কার করে।

গত ১৩ এপ্রিল ছাত্রলীগ এশাকে তার আগের স্বপদে পুনর্বহাল করে এবং এশাকে নির্যাতন করার ঘটনায় দায়ী করে সোমবার এক কেন্দ্রীয় নেত্রীসহ ২৬জনকে বহিষ্কার করে।

এদিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান জানিয়েছেন, ১০ এপ্রিলের ঘটনায় জড়িত ২৬ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে এবং তাদের শোকজ করা হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে তদন্তানুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY