বিনোদন সংবাদ : রবিবার বিকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৬’-এর ৪১তম আসর। গত বছরের মতো এবারও প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। যৌথভাবে এটির আয়োজন করে বাংলাদেশ তথ্য মন্ত্রণালয় ও বিএফডিসি।

এবারের ৪১তম আসরে আজীবন সম্মাননা দেয়া হয়েছে বাংলা চলচ্চিত্রের দুই জীবন্ত কিংবদন্তী অভিনয়শিল্পী নায়ক ফারুক ও নায়িকা ববিতাকে। রাষ্ট্র থেকে এমন সম্মান পাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই উচ্ছ্বসিত দুজনই। পুরস্কার হাতে নেয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় নায়ক ফারুক বলেন, ‘এটা অনেক বড় একটি সম্মান। আমরা সারাজীবন যে মেধা ও শ্রম দিয়েছি, কষ্ট করেছি, এটা তারই সম্মান।’

‘সারেং বউ’ খ্যাত নায়ক মনে করেন, শিল্পীদের জন্য আরও কিছু করতে পারে সরকার। এ জন্য তিনি দাবি করে বলেন, ‘আমাদের ভিআইপি স্ট্যাটাস নেই, শিল্পীদের এটা থাকা জরুরি। আমি চলচ্চিত্র পরিবারকে ভালো রাখার জন্য কাজ করে যাচ্ছি। এ ধারা অব্যাহত রাখতে চাই। চলচ্চিত্রে অসহায় শিল্পীদের দিকেও সরকারের দৃষ্টি দেয়া দরকার।’

অন্যদিকে নায়িকা ববিতা তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘এই সম্মাননা পেয়ে আমি দারুণ আনন্দিত। এত বছরের কাজের স্বীকৃতি পাওয়ায় বেশ গর্ববোধও হচ্ছে। যখন দেখেছি ছবিটা ভালো, তখন বিনা পারিশ্রমিকেও কাজ করেছি। ভবিষ্যতে সবাই মিলে সচেতনভাবে আরও ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে চাই। এ জন্য তরুণ শিল্পীদের কাজের প্রতি আরও যত্নবান হওয়া দরকার।’

প্রসঙ্গত, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের এবারের আসরে ‘আয়নাবাজি’ ছবির জন্য সেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন চঞ্চল চৌধুরী। ‘অস্তিত্ব’ ও ‘শঙ্খচিল’ ছবি দুটির জন্য যৌথভাবে সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হয়েছেন নুসরাত ইমরোজ তিশা ও কুসুম শিকদার। অন্যদিকে সেরা গায়ক ও গায়িকার পুরস্কার জিতেছেন যথাক্রমে ওয়াকিল আহমেদ ও মেহের আফরোজ শাওন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY