দেওয়ান নাঈম, হালুয়াঘাট প্রতিনিধি:
তিন সপ্তাহ পেরিয়ে গেলেও উদ্ধার হয়নি ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার ধুরাইল ইউনিয়নের পশ্চিম রামনগর ঘোনাপাড়া গ্রামের ৩ শিক্ষার্থী। নিখোঁজের ঘটনাটি জাতীয় ও আঞ্চলিক বেশ কয়েকটি পত্রিকায় প্রকাশিত হলেও কোন সন্ধান মিলছেনা তাদের।
গত ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে নিখোঁজ হওয়া একই বাড়ির তিন শিক্ষার্থীরা হল মিজানুর রহমানের কন্যা মার্জিয়া খাতুন (১১), বছির উদ্দিনের কন্যা পলাশী (১২) ও মোঃ হুমায়ুনের ছেলে দ্বিন ইসলাম ওরফে কালা (১৩) একই রাতে নিখোঁজ হয়।
মার্জিয়ার মা জানায় ১৫ সেপ্টেম্বর রাতে কাউকে কিছু না বলে চলে যায় মার্জিয়া । ঘরে খোঁজ নিয়ে দেখা যায় তার ব্যবহারের জিনিস ও কাপর নেই।
পলাশীর এক চাচা জানায়, দ্বীন ইসলাম প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়লেও বয়সে মার্জিয়া ও পলাশীর বড়। এ বিষয়ে সন্দেহ করছেন কেউ কেউ। তবে দুজন মেয়ে ও এক ছেলে হওয়ায় বিষয়টি মানতে নারাজ অনেকেই।
মার্জিয়া ও পলাশীর বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জানায়, মার্র্জিয়া ও পলাশী আমার স্কুলের ছাত্রী। তবে তারা সকলেই নিজ বাড়ি থেকে নিখোঁজ হওয়ায় আমাদের কিছুই করার নেই।
স্কুলের সহপাঠিদের কাছে মার্জিয়া ও পলাশীর নিখোঁজের ব্যাপারে জানতে চাইলে তারা জানায়, অন্য সব মেয়েদের মতই তাদেরকেও তারা চিনত জানত। নিখোঁজ হওয়া বা কারো সাথে সম্পর্ক ছিল কিনা এ বিষয়ে তারা কিছুই জানে না।
পলাশীর দাদা জানায়, সকল আত্মীয় স্বজনদের বাড়িতে খোঁজ খবর নেওয়া হয়েছে। যেখানেই সন্দেহ হয়েছে খোঁজ নিয়ে না পেয়ে বাড়ি ফিরে আসতে হয়েছে।
হালুয়াঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ জাহাঙ্গীর আলম তালুকদার জানায়, আমরা সদা তৎপর ও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আশাকরি খুব দ্রুত তাদের উদ্ধার করতে সক্ষম হব।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY