বিনোদন সংবাদ:   আসছে পূজায় মুক্তি পেতে চলেছে কলকাতার সুপারস্টার দেব ও উঠতি নায়িকা কৌশানি মুখোপাধ্যায় অভিনীত ছবি ‘হইচই আনলিমিটেড’। এই ছবির মাধ্যমে প্রথমবারের মতো কৌশানির সঙ্গে জুটি বাঁধলেন দেব। অভিনয়ের পাশাপাশি এই ছবি প্রযোজনাও করেছেন দেব। পরিচালনায় রয়েছেন অনিকেত চট্টোপাধ্যায়।

ছবির চিত্রনাট্য অনুযায়ী, দেব বড় এক শিল্পপতির ঘরজামাই। তার স্ত্রী কৌশানি। যিনি সবসময় পুজোপাঠ নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। যেটা দেবের জীবনের সব থেকে বড় সমস্যা। ছবিতে দেবের শিল্পপতি শ্বশুরের চরিত্রে আছেন অভিনেতা রজতাভ দত্ত।কমেডি ছবিতে যার জুড়ি মেলা ভার।

ছবিতে প্রোমোটার বিজনের ভূমিকায় আছেন খরাজ মুখোপাধ্যায়। দুই বউ নিয়ে তার জীবন সমস্যায় জর্জরিত। কিন্তু এক বউ আরেক বউয়ের খবর জানেন না। সারাক্ষণ তাই বিজনের একটাই ভয়, এক বউ যদি অন্য বউয়ের খবর জেনে যায়। দুই বউয়ের চরিত্রে আছেন কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায় ও মানসী সিনহা।

দেব-রুক্মিণী-কৌশানি ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট অনিমেষ চাকলাদারের (শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়) জীবনেও শান্তি নেই। কারণ অভিনেত্রী সুদীপ্তা চক্রবর্তী। তিনি এ ছবির গুন্ডা। সুদীপ্তা প্রায়ই অনিমেষকে হুমকি দেয়, বাড়িটা তার নামে লিখে দিতে।

এদিকে, বউয়ের জন্য মনে শান্তি নেই গ্যারেজ মেকানিক আজমল খানেরও (অর্ণ)। কারণ আজমলের বউ রোজা পারমিতার জীবনের একটাই লক্ষ্য, অভিনেত্রী হওয়া। মেকানিক আজমল সম্পর্কে তার ধারণা, এই কালিঝুলি মাখা মানুষটি তার বর হওয়ার যোগ্য নয়।

সুতরাং, কারও মনেই শান্তি নেই। শান্তির খোঁজে তারা সবাই ঘুরতে যান উজবেকিস্তানে।কিন্তু বিদেশে ঘুরতে গিয়েও ঘটনাচক্রে এমন এমন সমস্যা তৈরি হয়, যা রীতিমতো হইচই বাধিয়ে দেয় তাদের জীবনে। সেটা কী? উত্তর মিলবে আগামী ১২ অক্টোবর। ওইদিনই মুক্তি পাবে ছবি।

প্রসঙ্গত, দেব-কৌশানি এর আগে ২০১৬ সালে ‘কেলোর কীর্তি’ ছবিতে একসঙ্গে অভিনয় করেছিলেন। তবে কমেডি ঘরনার সে ছবিতে কৌশানির নায়ক ছিলেন অঙ্কুশ হাজরা।এবার প্রথমবার জুটি বেঁধে দেব-কৌশানি শুধু প্রেমিক-প্রেমিকাই নন, স্বামী-স্ত্রী। কেমন করেন  সেটাই এখন দেখার।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY