বিনোদন সংবাদ :  তিনদিন পর অবশেষে দাঁড়ি পড়ল ভারতের প্রথম নারী সুপারস্টার নায়িকা শ্রীদেবীর মৃত্যুরহস্যে।  সদ্য প্রয়াত অভিনেত্রীর মরদেহ ভারতে নিয়ে আসার জন্য ছাড়পত্র দিয়েছে দুবাই পুলিশ। ভারতীয় কনস্যুলেটকে চিঠি দিয়ে এ কথা জানিয়েছে দুবাই প্রশাসন। এর পরই দুবাইতে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের পক্ষ থেকে টুইট করে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়।

টুইটে জানানো হয়েছে, ‘দুবাই পুলিশ ভারতীয় দূতাবাস এবং শ্রীদেবীর পরিবারের সদস্যদের হাতে মরদেহ ভারতে নিয়ে যাওয়ার ছাড়পত্র অর্থাৎ ক্লিয়ারেন্স লেটার তুলে দিয়েছে। খুব দ্রুত দেহের সংরক্ষণ প্রক্রিয়া শুরু হবে। মঙ্গলবারই মরদেহ ভারতে পৌছানোর কথা রয়েছে।

বিভিন্ন সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, দেহ সংরক্ষণের জন্য ঘণ্টা দুয়েক সময় লাগবে। তার পরেই অনিল আম্বানীর রিলায়েন্স গ্রুপের ব্যক্তিগত জেট বিমানে অভিনেত্রীর মরদেহ ভারতে ফিরিয়ে আনা হবে। ফলে, অভিনেত্রীর মৃত্যুর পরে মরদেহ দেশে ফেরানো নিয়ে যে জটিলতা তৈরি হয়েছিল, তা থেকে মুক্তি পেল কাপুর পরিবার।

শ্রীদেবীর মৃত্যুর পরে মরদেহ ছাড়তে এতটা দেরি হওয়ায় বিভিন্ন প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছিল। এমনকী, শ্রীদেবীকে খুন করা হয়েছে কিনা, সেই প্রশ্নও তুলেছিলেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী। তিনি এই মৃত্যুর পেছনে মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমের হাত রয়েছে বলেও মন্তব্য করেছিলেন।

এদিকে, নায়িকার মরদেহ ফিরতে দেরি হওয়ায় বাবার পাশে থাকতে বনি কাপুরের প্রথম পক্ষের ছেলে অর্জুন কাপুরও দুবাই উড়ে গিয়েছিলেন। তবে অবশেষে ছাড়পত্র পাওয়ায় স্বস্তি বাতাস বইছে কাপুর পরিবারে। মুম্বাইয়ে অনিল কাপুরের বাড়িতে পরিবারের সদস্যরা ছাড়াও বহু বলিউড তারকা প্রয়াত অভিনেত্রীকে শেষ শ্রদ্ধা জানানোর জন্য অপেক্ষা করছেন।

 

সম্প্রতি ভাইপো মোহিত মারওয়ারের বিয়েতে যোগ দিতে দুবাই গিয়েছিলেন নায়িকা শ্রীদেবী। গত শনিবার রাতে সেখানেই মারা যান তিনি। এরপর সোমবার ফরেনসিক রিপোর্টে নায়িকার হৃদরোগে মারা যাওয়ার কথা বলা হলেও পরে বলা হয় বাথটাবের পানিতে ডুবে মারা গেছেন তিনি। তার পেটে অ্যালকোহল পাওয়া গেছে বলেও ফরেনসিক রিপোর্টে বলা হয়।

তবে দেরিতে হলেও নায়িকার মৃত্যুরহস্য নিয়ে সব ধোয়াশাই কেটেছে। এদিকে গত রবিবার সকালে শ্রীদেবীর মৃত্যুর খবর প্রকাশ্যে আসার পর থেকেই মুম্বাইয়ের ভারসোভায় তাঁর বাংলোর সামনে ভিড় করতে থাকেন ভক্তরা। সকলেই শেষবার শ্রদ্ধা জানাতে যান প্রিয় নায়িকাকে। তবে মরদেহ যেহেতু অনিল কাপুরের বাড়িতে নেয়া হচ্ছে, কাজেই মঙ্গলবার সেখানেই ভীড় জমিয়েছে হাজারো ভক্ত। সবার একটাই প্রশ্ন, কখন আসবে নায়িকার মরদেহ।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY