বিনোদন সংবাদ : ব্যক্তিগত কাজের কারণ দেখিয়ে কলকাতার পরিচালক অরিন্দম শীলের ‘বালিঘর’ ছবি থেকে সরে দাঁড়ালেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী নুসরাত ইমরোজ তিশা। এই ছবির মূল নায়িকা ছিলেন তিনি। নায়ক ছিলেন ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত আরিফিন শুভ। কিন্তু সবকিছু চূড়ান্ত করেও শেষমেষ ছবি থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিলেন অভিনেত্রী।

সোমবার নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে একটি স্ট্যাটাস দিয়ে ‘বালিঘর’-এ না থাকার খবর জানান তিশা। ‘বালিঘর’-এর শুটিং শুরু হওয়ার কথা রয়েছে আগামী সেপ্টেম্বরে। কিন্তু তিশা গণমাধ্যমকে জানান, ‘সেপ্টেম্বরে বিভিন্ন জায়গায় আমার বেশকিছু কমিটমেন্ট দেয়া আছে। ওই সময় শুটিং পড়ায় ছবিটিতে কাজ করা সম্ভব হচ্ছে না।’

জানুয়ারিতে এই ছবির কাজে ঢাকায় এসেছিলেন কলকাতার পরিচালক অরিন্দম শীল। ২০ জানুয়ারি ঢাকার একটি হোটেলে সংবাদ সম্মেলন ছবি সম্পর্কে বিস্তারিত জানান তিনি। প্রথমে ছবির শুটিং শুরু হওয়ার কথা ছিল গত মার্চে। কিন্তু ওই সময় ছবির নায়ক শুভ হুট করেই ব্যস্ত হয়ে পড়েন নায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’ ছবির কাজ নিয়ে।

 

এরপর ঠিক করা হয়, ২০ আগস্ট থেকে শুরু হবে শুটিং। কিন্তু দ্বিতীয় দফায় তারিখ পিছিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় সেপ্টেম্বরে। ঘন ঘন তারিখ পরিবর্তনের কারণেই তিশা ছবি ছাড়লেন কিনা এখন চলছে তারই ময়নাতদন্ত। সূত্র মতে, ছবির প্রথম ধাপের শুটিং হবে বাংলাদেশের কক্সবাজারে। এরপর দ্বিতীয় ধাপের শুটিং হবে কলকাতায়।

অরিন্দম শীলের পরিচালনায় ‘বালিঘর’ নির্মিত হবে বাংলাদেশের বেঙ্গল ক্রিয়েশনস এবং ভারতের নাথিং বিয়ন্ড সিনেমার যৌথ প্রযোজনায়। চার বন্ধুর গল্প থাকবে এই ছবিতে। কলকাতার কথাসাহিত্যিক সুচিত্রা ভট্টাচার্যের ‘ঢেউ আসে ঢেউ যায়’উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হচ্ছে এটি। ছবিতে শুভ ছাড়াও কলকাতা থেকে রয়েছেন আবির চ্যাটার্জি, রাহুল ব্যানার্জি, অনির্বাণ ভট্টাচার্জ ও পার্নো মিত্র।

এদিকে, অভিনেত্রী তিশা সম্প্রতি শেষ করেছেন তৌকীর আহমেদ পরিচালিত ‘ফাগুন হাওয়া’, মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর ‘শনিবার বিকেল’ ও তাহের শিপন পরিচালিত ‘হলুদবনি’  ছবি তিনটির কাজ। তিনটিই রয়েছে সম্পাদনার টেবিলে। চলতি বছরই ছবিগুলো মুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। এছাড়া ঈদের জন্য নির্মিত ডজন খানেক ধারাবাহিক ও প্যাকেজ নাটকেও দেখা যাবে তাকে।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY