লাইফস্টাইল সংবাদ : ছেলেমেয়েদের মানুষ করার ক্ষেত্রে বয়ঃসন্ধিকাল হল সবচেয়ে কঠিন পর্যায়। ১৩ থেকে ১৯— এই বয়সকালের ছেলেমেয়েরা সাধারণত বেশ মেজাজী হয়, কথায় কথায় তারা ট্যানট্রাম দেখায়। মানুষ সামগ্রিক ভাবেই খুব স্পর্শকাতর হয়ে থাকে এই বয়সে। বাবা-মায়েদের সেই বিষয়টা মাথায় রেখে একটু সতর্ক থাকতে হয় যে কোনও ধরনের কমিউনিকেশনের ক্ষেত্রে।

বিভিন্ন ধরনের শারীরিক ও অনুভূতিগত পরিবর্তনের মধ্যে দিয়ে যায় এই সময় কিশোর-কিশোরীরা। এই পরিবর্তনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে গিয়েই নানা ধরনের স্ট্রেস তৈরি হয়। আর সেই স্ট্রেসের বহিঃপ্রকাশটা ঘটে তাদের আচরণে।

 

তবে  এমনটা ভাবার কোনও কারণ নেই যে শুধুমাত্র টিনএজাররাই স্ট্রেসের কবলে পড়েন। তাঁদের মধ্য়ে বয়ঃসন্ধিজনিত স্ট্রেস যেমন থাকে, তেমনই বাবা-মায়েরা অত্যন্ত বিচলিত থাকেন, কীভাবে সেই স্ট্রেসের মোকাবিলা করবেন সেই ভেবে। অভিভাবকদের উপরেই বরং দু’ধরনের চাপ কাজ করে। প্রথমত, ছেলেমেয়েদের এই বয়ঃসন্ধিগত সমস্যাগুলি থেকে সামলানো এবং দ্বিতীয়ত, এই গোটা প্রক্রিয়ায় নিজেদের আচরণ ও বহিঃপ্রকাশগুলিকে সংযত রাখা।

কীভাবে তাঁরা অভিভাবকত্বের এই জটিল সময়টি সফলভাবে পেরবেন, কোন কোন পরিস্থিতিকে কেমন ভাবে মোকাবিলা করবেন— এমন বিবিধ বিষয়ের হদিশ দিয়েছেন প্রকৃতি প্রসাদ, তাঁর সদ্য প্রকাশিত বই ‘পেরেন্টিন: হাউ টু নারচার ইওর অ্যাডোলেসেন্টস ইন মডার্ন টাইমস’-এ। রূপা প্রকাশনা সংস্থার এই নতুন বইটি পাওয়া যাচ্ছে শহরের প্রায় সব বড় বুকস্টোরে।

প্রকৃতি পেশায় একজন লেখক এবং সাংবাদিক। প্রায় ২০ বছরের অভিজ্ঞতাসমৃদ্ধ তিনি সাংবাদিকতায়। এর আগে তাঁর সম্পাদনায় প্রকাশিত হয়েছে দু’টি কফি টেব্‌ল বুকও।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY