জাতীয় সংবাদ : আজ সন্ধ্যায় জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (একাংশ) সভাপতি  আ স ম আবদুর রবের উত্তরার বাসায় গিয়েছিলেন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।  সেখান থেকেই রাত ৯টা ৪৬ মিনিটে একটি মানহানি মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আ স ম আব্দুর রবের স্ত্রী তানিয়া রব জানান, ‘আমরা বাসায় ছিলাম না।  রাতে এসে দেখি অনেক লোক, একটু আবাকই হলাম।  আজ কোনো মিটিং ছিল না।  ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন বাসায় এমনিতেই এসেছিলেন।  রাত পৌনে ১০টার দিকে তাকে ডিবি পুলিশ নিয়ে গেছে।’

মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম-কমিশনার মাহবুব আলম গণমাধ্যমকে জানান, ‘ব্যারিস্টার মইনুলকে উত্তরা থেকে রংপুরের একটি মামলার ওয়ারেন্ট থাকায় গ্রেফতার করেছে ডিবি।’

১৬ অক্টোবর মধ্যরাতে একাত্তর টেলিভিশনের টকশোতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে উদ্দেশ্য করে বিরুপ মন্তব্য করায় সোমবার বিকেলে রংপুরের মুলাটোল এলাকার মিলি মায়া বেগম বাদী হয়ে রংপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা করেন।  পরে তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে আদালত।

এর আগে গতকাল রোববার নিম্ন আদালতে সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টি নিজে বাদী হয়ে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

এ ঘটনায় ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়ে গত শনিবার বিবৃতি দেন বিভিন্ন গণমাধ্যমের ৫৫ সম্পাদক ও বেশ কয়েকজন সিনিয়র সাংবাদিক।

এর আগে ১৮ অক্টোবর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নেয়ার হুশিয়ারি দিয়ে নারী সাংবাদিকরা সংবাদ সম্মেলন করেন।  এছাড়া ভোলা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও রংপুরে ব্যারিস্টার মইনুলের বিরুদ্ধে মানহানি মামলা করে নারী সাংবাদিক ও নারী নেত্রিরা।  এর মধ্যে রংপুর এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়ার মামলায় তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।  কয়েকটি মামলায় ব্যারিস্টার মইনুল উচ্চ আদালত থেকে জামিন নিয়েছেন।

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY