মুক্তাগাছা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি;
মুক্তাগাছা উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক ও উপজেলা নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ তারেকের ব্যক্তিগত উদ্যোগে উপজেলার বার কাহনিয়া গ্রামে বন্যাদূর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেন। সোমবার দুপুরে ৩ শতাধিক বন্যা দূর্গত মানুষের মাঝে শাড়ী, লুঙ্গী, শার্ট, থ্রিপিছ ও সহ¯্রাধিক মানুষের মাঝে খিচুরি বিতরণ করেন। এসময় বন্যার্ত মানুষের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনাদের এ বিপদের সময়ে সামান্য কিছু নিয়ে পাশে দাড়ানোর অর্থ হলো সমাজের সকল বিত্তবান লোকেরা যেন পাশে দাড়ায়। দুর্যোগ কখনো কাউকে বলে-কয়ে আসে না। একজনের বিপদে আরেক জন দাড়ালে যেকোন বিপদ মোকাবেলা করা সম্ভব। আজকে এই দূর্যোগে যারা মানবেতর জীবনযাপন করছে তারাও মানুষ, আমরাও মানুষ। যারা উচ্চ অবস্থানে রয়েছেন তারাও মানুষ। আল্লাহ পাক ভাল জানেন কে কখন কি অবস্থায় থাকবেন। কে ভালো থাকবে আর কে ভালো থাকবে না। আজকে কেউ হয়তো ধনী কাল সে নাও ধনী থাকতে পারে। সবই আল্লাহ রাব্বুল আলামিনের ইশারাতেই হয়। একটা সময়ে আমাদের কবরে যেতেই হবে। সেখানে আমরা সবাই এক। সাড়ে তিন হাত জায়গা সাদা কাপড় শুধু থাকবে আর কিছু নয়। আল্লাহর কাছে আমরা সবাই সমান। সেখানে কোন রঙ, সাদা-কালো, ধনী-গরীবের কোন ভেদাভেদ নাই। তবে আমাদের কিছু বুঝার বিষয় আছে। আমাদের দেশের যে সকল বিত্তবান মানুষেরা আছেন তারা যদি সঠিকভাবে যাকাত দিতো। তবে, এদেশে কোন মানুষ অসহায় থাকতো না। সমাজে যাদের আর্থিক অবস্থা ভালো তাদের প্রতি আমার আহবান আসুন, আজকের এই অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াই। আমাদের অবস্থা তাদের মতো হতে পারতো। আর হতেও পারে যে কোন সময়। বিবেকটাকে নাড়া দিয়ে আসুন একসাথে কাঁধে-কাঁধ মিলিয়ে কাজ করি। সমতা তৈরী করি আমার আপনার সকলের। আমি মুক্তাগাছার একজন সাধারণ মানুষ। সামান্য কিছু নিয়ে আপনাদের পাশে দাঁড়াতে এসেছি। আপনাদের ভালবাসার টানে চলে এসেছি। আমি আছি আপনাদের পাশে সব সময়। আপনাদের কাছে শুধু আমার একটাই চাওয়া, আপনাদের সন্তান হিসেবে দোয়া চাই। এসময় উপজেলা আওয়ামীলীগ ও তার বিভিন্ন সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY