মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিম নাগরিকদের গণহত্যা ও মানবতাবিরোধী কমর্কাণ্ডের প্রতিবাদে প্রতীকী অনশন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে বাংলাদেশ সাধারণ নাগরিক সমাজের উদ্যোগে এই প্রতীকী অনশন পালন করা হয়।

প্রতীকী অনশনে নাগরিক সমাজের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের ওপর অং সান সু চি আজ যে গণহত্যা চালাচ্ছে তার বিচার হতে হবেই। এ গণহত্যায় প্রায় ১০ হাজার মুসলিম নাগরিককে হত্যা করা হয়েছে এবং ৫ হাজারেরও বেশি ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, গত ১০ দিনে নাফ নদী দিয়ে শতাধিক লাশ ভেসে আসছে। ইতোমধ্যে ৩ লক্ষ ৭০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

অবিলম্বে এ গণহত্যা ও আমানবিক নিযার্তন বন্ধের জন্য বাংলাদেশ সরকারের সহায়তা কামনা করেন এবং বিশ্বের শক্তিশালী রাষ্ট্রগুলোকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

প্রতীকী অনশনে জাগো বাঙ্গালির সভাপতি হাবিবুর রহমান, মোস্তফা কামাল বাবর, নাগরিক সমাজের সদস্য কামরুল হাসান, মোহি আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ২৫ আগস্ট দেশটির পুলিশের ওপর রোহিঙ্গাদের চালানো হামলার প্রতিক্রিয়ায় রাখাইনে সেনা অভিযান শুরু হয়েছে। যার কারণে প্রায় তিন লাখ রোহিঙ্গা মুসলমান বাংলাদেশে পালিয়ে আসতে বাধ্য হয়েছে। বাংলাদেশে শরণার্থীর স্রোত এখনো অব্যাহত রয়েছে। বহু রোহিঙ্গা নিহত হচ্ছেন এবং সীমান্তের দুপাশেই তৈরি হয়েছে এক মানবিক পরিস্থিতি।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY