স্বাস্থ্য সংবাদ : মৌমির জ্বর হয়েছে। গত তিন চার দিন ধরে ঠান্ডা জ্বরে ভুগছেন। সাথে মাথা ব্যথা আর শরীর দুর্বল লাগা তো রয়েছেই। ইডেন মহিলা কলেজের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মোমি। সামনে পরীক্তা, পড়ালেখা আছে। আর এমন আবহাওয়া, এই গরম তো এই ঠান্ডা। এর মধ্যে আবার জ্বর।

জ্বর হলে চট করে সারেও না, তার কারণ, রাতে গরমে ফ্যান ছেড়ে ঘুমালেও ভোর রাতে বৃষ্টি নামে, সেই সাথে নামে ঠান্ডা। এ সময় জ্বর আর তার সাথে গলা ব্যথা, হাঁচি বা নাক দিয়ে অনবরত পানি পড়ার বিষয় গুলো দেখা যায়। সাথে মাথাব্যথা, শরীরব্যথা বা শরীর দুর্বল লাগার মত বিষয়গুলোও থাকে।

এই জ্বর যদিও চার-পাঁচ দিনে ভাল হয়ে যায় তবে কাশি, মাথা ব্যথা, শরীর দুর্বল লাগা থাকে আরো বেশ কিছু দিন। কী করা উচিত এই হঠাৎ উপদ্রবের মতন জুটে বসা ঠান্ডা জ্বরে?

এ বিষয়ে  পাঠকদের জন্য কিছু পরামর্শ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিসিন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ফেরদৌস-উর-রাহমান।

 

ঠান্ডা জ্বরে যা করনীয়

•             সম্পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে হবে, কোন ভারী কাজ করা যাবে না।

•             প্রচুর পরিমাণে পানি ও তরল জাতীয় খাবার খেতে হবে।

•             মশারি টানিয়ে ঘুমাতে হবে। এসময় মশার প্রদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় চিকুনগুনিয়া, ডেঙ্গু, ম্যলেরিয়ার মত জ্বর হতে পারে।

•             ডাক্তারের পরামর্শ ব্যতীত অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধ খাওয়া যাবে না। তবে প্যরাসিটামল জাতীয় ওষুধ খাওয়া যেতে পারে।

•             নিয়মিত গোসল করুন। সম্ভব না হলে শরীর মুছে ফেলুন।

•             ঠান্ডা ও বাসী খাবার এড়িয়ে চলুন।

•             কুসুম গরম পানি দিয়ে গড়গড়া করতে পারেন দিনে ২/৩ বার।

•             বাচ্চাদের ঠান্ডা লাগলে সতর্ক থাকতে হবে যাতে গলায় কফ বসে না যায়।

•             জ্বর দীর্ঘ স্থায়ী হলে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।

NO COMMENTS

LEAVE A REPLY